এম্বি ফার্মার মুনাফা কমেছে
শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত এম্বি ফার্মার শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) ৬ শতাংশ কমেছে। আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে (জুলাই’১৯-মার্চ’২০) এই মুনাফা কমেছে।
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ২.৩৮ টাকা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস হয়েছিল ২.৫৪ টাকা। এ হিসাবে মুনাফা কমেছে ০.১৬ টাকা বা ৬ শতাংশ।
এদিকে চলতি অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকের ৩ মাসে অর্থাৎ জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.৭৫ টাকা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস হয়েছিল ০.৮৫ টাকা। এহিসেবে কোম্পানিটির মুনাফা ০.১০ টাকা বা ১২ শতাংশ কমেছে।
২০২০ সালের ৩১ মার্চ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৩.৪৭ টাকায়।
স্টাইলক্রাফটের মুনাফা ৪৭ শতাংশ কমেছে
শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত স্টাইল ক্রাফটের শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) ৪৭ শতাংশ কমেছে। আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে (জুলাই’১৯-মার্চ’২০) এই মুনাফা কমেছে।
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ১.২৫ টাকা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস হয়েছিল ২.৩৮ টাকা। এ হিসাবে মুনাফা কমেছে ১.১৩ টাকা বা ৪৭ শতাংশ।
এদিকে চলতি অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকের ৩ মাসে অর্থাৎ জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.৭৬ টাকা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস হয়েছিল ০.৭৭ টাকা। এহিসেবে কোম্পানিটির মুনাফা ০.০১ টাকা বা ১ শতাংশ কমেছে।
২০২০ সালের ৩১ মার্চ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৭.৬৮ টাকায়।
মালেক স্পিনিংয়ের মুনাফা ৬৩ শতাংশ কমেছে
শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত মালেক স্পিনিংয়ের সমন্বিত শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) ৬৩ শতাংশ কমেছে। আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে (জুলাই’১৯-মার্চ’২০) এই মুনাফা কমেছে।
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে কোম্পানিটির সমন্বিত শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.২২ টাকা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস হয়েছিল ০.৫৯ টাকা। এ হিসাবে মুনাফা কমেছে ০.৩৭ টাকা বা ৬৩ শতাংশ।
এদিকে চলতি অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকের ৩ মাসে অর্থাৎ জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে সমন্বিত শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ০.৪৩ টাকা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান হয়েছিল ০.২০ টাকা। এহিসেবে কোম্পানিটির লোকসান ০.২৩ টাকা বা ১১৫ শতাংশ বেড়েছে।
২০২০ সালের ৩১ মার্চ কোম্পানিটির সমন্বিত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৪৪.৮১ টাকায়।
সাভার রিফ্রাক্টরিজের লোকসান ২৮ শতাংশ কমেছে
শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সাভার রিফ্রাক্টরিজের শেয়ারপ্রতি লোকসান ২৮ শতাংশ কমেছে। আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে (জুলাই’১৯-মার্চ’২০) এই লোকসান কমেছে।
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
চলতি অর্থবছরের ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ০.৬৫ টাকা। আগের বছরের একই সময়ে লোকসান হয়েছিল ০.৯০ টাকা। এ হিসাবে লোকসান কমেছে ০.২৫ টাকা বা ২৮ শতাংশ।
এদিকে চলতি অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকের ৩ মাসে অর্থাৎ জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ০.১৬ টাকা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান হয়েছিল ০.৩৫ টাকা। এহিসেবে কোম্পানিটির লোকসান ০.১৯ টাকা বা ৫৪ শতাংশ কমেছে।
২০২০ সালের ৩১ মার্চ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩.৩৯ টাকায়।
লোকসানে রহিম টেক্সটাইল
পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি রহিম টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড চলতি হিসাববছরের তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২০) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আলোচ্য প্রান্তিকে কোম্পানিটি লোকসান করেছে। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) অনুষ্ঠিত কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের সভায় আলোচিত  প্রতিবেদন পর্যালোচনা ও অনুমোদনের পর তা প্রকাশ করা হয়। ডিএসই সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।
অনিরীক্ষিত প্রতিবেদন অনুসারে, প্রথম তিন প্রান্তিক তথা হিসাববছরের প্রথম ৯ মাসে (জুলাই’১৯-মার্চ’২০) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে আয় ছিল ৫ টাকা ৬৯ পয়সা।
এদিকে কোম্পানিটি বছরের প্রথম ৩ মাসে (জানুয়ারি,২০-মার্চ,২০) লোকসান করেছে ৪ টাকা ১৫ পয়সা। আগের বছর একই সময় আয় করেছিল ১ টাকা।
তিন প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ছিল ৬ টাকা ১৭ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ক্যাশ ফ্লো ছিল ১ টাকা ৭৫ পয়সা।
গত ৩১ মার্চ, ২০২০ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য ছিল ৩৬ টাকা ৮৩ পয়সা।

Leave a comment